‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’

জীবনের শেষ কিনারায় এসে দাঁড়িয়েছে মৃনাল। মৃনাল তার জন্মসূত্রের পরিচয় কিন্তু অন্তরাত্মায় সে অতি সন্তর্পনে প্রতিপালন করে এসেছে আরেক ব্যক্তিত্বের বা পরিচিতির – মীরা! সারাটা জীবন মৃনাল আর মীরার অন্তর্দ্বন্দ্বে দগ্ধ হয়েছে সে। এই দহন তাকে বিচ্ছেদ করেছে সাংসারিক জীবন থেকে, গলা টিপে মেরেছে তার প্রতিভা এবং পরিশেষে তাকে পরিণত করেছে এক অস্তিত্ব সংকটে ভোগা উদ্দেশ্যহীন মাতালে| মৃণালের আলো-আঁধারি ঘরে অনুপ্রবেশ করে এক নীল-মানুষ। কোথা দিয়ে ঢুকল সে? মৃণালের মনে হাজারো প্রশ্ন। যতই সে নীল-মানুষের মুখোমুখি হচ্ছে ততই যেন একটা ঘোর তাড়া করছে মৃণালকে। কে এই নীল মানুষ? মৃণালের মনে হাজারো প্রশ্ন। অস্তিত্ব-সমকাম-সংসার-বিচ্ছেদ সব কেমন যেন গোল পাকিয়ে যাচ্ছে মৃণালের। এমনই এক কাহিনিকে ঘিরে তৈরি হয়েছে ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’-এর নাট্যচিত্র।

শহরের একদল তরুণ প্রজন্মকে নিয়ে তৈরি হওয়া নাট্যদল ‘খোঁজ’ এমন সব বিষয়কে নিয়ে তৈরি করে চলেছে একের পর এক নাটক। ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’ ইতিমধ্যে দুবার প্রদর্শিতও হয়েছে। পরিবেশনা, ভাবনা আর বিষয় আঙ্গিকের অভিনবত্বে নাট্যপ্রেমীদের প্রশংসাও কুড়িয়েছে ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’।

‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’-এর কাহিনি মূলত এক গে-র জীবনের ওঠা-নামাকে ঘিরেই আস্তে আস্তে বিস্তার মেলেছে। নাটকটির পরিচালক কৌস্তভ ভট্টাচাৰ্য। অভিনয়ে আছেন- ঋষি, বিহান, প্রীতম, জ্যোতির্ময়, সুভাষ, দেবারতি, মিষ্টি, প্রসেনজিৎ, প্রতীক ও কৌস্তভ। এই নাটকের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হলো নৃত্য যা সযত্নে কোরিওগ্রাফি করেছে সমন্বিতা এবং ঈশাণ। মঞ্চে তাঁদের নৃত্য পরিবেশনাতেও দেখা যাবে ‘মীরার’ সাথে। আবহ সংগীত লাইভ পরিবেশনা করবে ‘সোম এন্ড মেটস’এর সৌম্য আর অয়ন। আলো, সেট ও সাউন্ড ডিজাইন করছে পরিচালক কৌস্তভ নিজেই। ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’-এর নাট্যকার সুশোভন কাঞ্জিলাল। খোঁজের পক্ষ থেকে পরিচালক কৌস্তভ জানান, ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট শুধুমাত্র গে-দের জীবনের সমস্যার কথা বলছে না, এই কাহিনি সমাজের প্রত্যেকটা মানুষের। যারা প্রতিনিয়ত নিজের স্বপ্নকে ছোঁয়ার জন্য লড়াই করে চলেছেন। এই কাহিনির পরতে পরতে ঠাঁই পেয়েছে সমাজের হিপোক্রিসি, তার দ্বিধা-দ্বন্দ্ব-যা একজন মানুষকে অন্তরে রোজ মোকাবিলা করতে হয়”| নাটকের সম্বন্ধে বলতে গিয়ে লেখক সুশোভন তার নিজের রচিত লাইনের উদ্ধৃতি নিয়ে বলে – “পৃথিবীতে শুধু কি দিন আর রাত হয়? গোধূলি বা ভোরবেলার সৌন্দর্যকে কি অস্বীকার করা যায়! এই নাটক সাদাকালোর মধ্যবর্তী নানান বর্ণের ধূসরের কাহিনি বলে আর ইন্ধন যোগায় তাদের অধিকারের লড়াই লড়তে সবরকম হিপোক্রিসি মুক্ত হয়ে”।
কলকাতা শহরের বুকে বেশ কয়েক বছর ধরেই অনেকে ভিন্ন-নাট্যভাবনাকে তুলে ধরছেন। কেউ একে বলছেন অল্টারনেটিভ থিয়েটার, আবার কারোর মতে এটাই হল মর্ডান থিয়েটার। খোঁজ নামে এই নাট্যদলেরও দাবি তারা বিষয় ভাবনায় এক আধুনিক মন ও চেতনাকে তুলে ধরার চেষ্টা করছে। আর তারই সূত্র ধরে জন্ম নিয়েছে ‘দ্য ন্যুড ফ্লুট’। এই ভিন্ন ভাবনার নাটক যাকে বলা যায় অভিনয়, নৃত্য, আলো আর মিউজিকের এক সয়ংসম্পুর্ন কোলাজ, দেখতে হলে ২৫ আগস্ট’১৯ অবশ্যই চলে আসুন তপন থিয়েটারে। সময় দুপুর ৩টা
নাটকটি পুনরায় মঞ্চস্থ হবে ২২ সেপ্টেম্বর’১৯ সন্ধ্যা ৬টায় জ্ঞান মঞ্চে। টিকিটের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন- কৌস্তভ ৮৪২০৮১৬০৬০ এবং সুশোভন ৯৭৪৮৬৮৯৬৮০ নম্বরে।