বাংলা নিয়ে স্নাতকোত্তর ও বি.এড। "কোন সে পথের বাঁকে" প্রকাশিত বই

ছড়ায় নারীর জীবন গড়া

কুমোর পাড়ার গরুর গাড়ি,
নারীর নিজের নেইকো বাড়ি।
গাড়ি চালায় বংশী বদন,
চাকায় পিষে নারীর জীবন।।
হাট বসেছে শুক্রবারে,
নারী জীবন পরের তরে।
জিনিসপত্র জুটি এনে,
কই গো নারী মানুষ চেনে?
সরষে ছোলা ময়দা আটা,
কপাল নারীর পুরোই ফাটা।।
ঝাঁঝরি কড়া বেড়ি হাতা,
মাঝ বয়সে শুকনো পাতা।
কলসি ভরা এখনো গুড়ে,
বয়সে নারীর কপাল পুড়ে।
খড়ের আঁটি নৌকা বেয়ে,
জীবন চলে ভিক্ষা চেয়ে।।
অন্ধ কানাই পথের পরে,
নারীরা যে সব ভাঙ্গে ও গড়ে।
পাড়ার ছেলে স্নানের ঘাটে,
জীবন নারীর এমনই কাটে।।।।।।