পানিহাটী কলকাতা নিবাসী কমার্স গ্রাজুয়েট, লেখালেখি,২০১৭ সাল থেকে । প্রিয় সাহিত্যিক বিনায়ক বন্দোপাধ্যায় , জয় গোস্বামী, শ্রীজাত দা, শব্দসাঁকো, ৯নং সাহিত্যপাড়া লেন, এবং অধ্যায়, কবিতানগর, এবং স্রোত, সহ কিছু পত্রিকা ও ওয়েবম্যাগে লেখা প্রকাশিত হয়েছে ।

বিদ্যাসাগর২০০/বিশেষ সংখ্যা

বিদ্যাসাগর মহাশয়ের প্রতি

অনেকদিন পর স্কুলবাড়ির  বারান্দায় আপনাকে দেখলাম=
তারপর কাছ থেকে দেখে   ভাবলাম
একটা মানুষ কিভাবে বটবৃক্ষ হয়ে ওঠে
দুশ বছরের বটবৃক্ষ ছায়া হয়ে কেমন  ভরসা দেয়
নিচে জন্মানো আগাছা পরিস্কার করছে স্কুলের বাচ্চারা,
তাদের জিজ্ঞেস করলাম চেনো ওঁনাকে
একযোগে বলল চিনবো না আবার!
আজ খেলনাপাতি রেখে মেয়েরা যে স্কুলে যাচ্ছে
নাহলে আজও হয়ত অল্পবয়সে বিধবা হয়ে ধর্মের  যাতাকলেই পরে থাকত,
মেয়েদের মুক্তির পথ দেখিয়েছেন উনি
আমাদের বর্ণ চিনিয়েছেন
সংস্কৃত কলেজে শুধুই ব্যানার্জি চ্যাটার্জিরাই পড়বে!কায়স্তরা পরবে না কেন!
ছেলেরা বহুবিবাহ করলে বিধবা মেয়েরা পারবে না কেন!যুক্তি দিয়ে বুঝিয়েছেন,
আমি তখন বাড়ি ফিরে যাচ্ছিলাম,
কি মনে হল, বললাম
শুনেছেন এক দেশ এক ভাষা !
আপনি আমার দিকে তেড়ে এলেন
আমি জানি দ্রুত হাঁটা আপনার অভ্যাস
আর চিন্তিত মুখটা দেখে মনে হল
এররম ভাবেই কী চিন্তিত ছিলেন=
যখন মাইকেল অনাহারে বিদেশে ছিলেন,
টাকা পাঠিয়েছেন,বলেছেন ফিরে এসো,
এইরকম চিন্তিত মুখ আর দেখিনি!
যেমন দেখিনি  লজিকের বই খুলে যুক্তি দিয়ে = বুঝিয়ে দিতে ।