পিতা

  একলা পুরুষ চৈতন্যে
     নিয়ম তত্ত্বে কঠিন।
ঝালে-ঝোলে পাঁচ ফোড়নে
       নয় তো স্বাদহীন!
রক্ষা করেন বিপদে আপদে
     পুরুষ পিতার চোখে।
আদরে আবদারে সময়টাকে
     আলতো করেন দেখে।
হে পিতা, হে পুরুষ তুমি
      জন্মদাতা, সন্তানের ভগবান
বাড়ির কর্তা, স্ত্রীর প্রেম
      ছেলে-মেয়ের অভিমান।
রাগী চোখে জ্বলেন যেমন
      বুকেও কান্না ভরা।
নারীরা অল্পেই ভাসে
      এ পুরুষ একলা ছাড়া।
একলা পুরুষ কর্তব্যে
     একলা জানি পিতায়।
একলা পুরুষ ভবিষ্যৎ
     পিতার হাতের ছোঁয়ায়।
পুরুষ যখন পিতার আসনে
       শক্ত চওড়া কাঁধ।
শত দুঃখ পেরিয়ে গিয়েও
       ভাঙতে পারি বাঁধ।