ত্রিযামা

।। ১ ।।
নীলাভ আলোর দ্যুতিতে আঁধার আবছা,
দ্বন্দ্ব টানাপোড়েনে রাতের ছায়া দীর্ঘায়ত
অভিমান জড়ো হয়ে পুরু পালকের জামা পরে,
সুখগুলো আকাশের মতো ছুঁতে গেলে দূরে সরে…
শব্দহীন নিঃসাড় প্রেম দুঃখ কথায় সমাধিস্থ,
খসে পড়া পালক নিয়ে ব্যাকুল প্রতিক্ষায়

।। ২ ।।

চারদেওয়ালের বদ্ধ ঘরে কৃষ্ণচূড়া আগুন নিভন্ত
এক কোলবালিশ দূরত্বে নিষিদ্ধ টনটনে বুক,
অচৈতন্য নিঃসঙ্গতা, প্রথা ভেঙে থমকে ঋষির মগ্নতায়!
চাবি হারিয়ে গ্যাছে অজানা মেলায়…
নীল নাইটল্যাম্পের আলো দাঁড়িপাল্লায় স্বপ্ন মাপে
পূর্বের বেহিসেবী হিসেব নিকেশের সাথে সমঝোতা

।। ৩ ।।

সাগরের জলে নেই কোনো বাঁধনহীন উচ্ছাস!
নোঙরহীন জাহাজ কাত হয়ে পাড়ের কিনারায়,
অস্তিত্ব মুছে যাওয়ার আগে ভাটায় জেগে ওঠে,
শুনশান রাতে বাতিস্তম্ভ আজও টিমটিম জ্বলে।
বেপরোয়া জোয়ার এসে পাড় দেয় ভাসিয়ে…
পূর্ণিমার চাঁদের আলোয় ভাঙা মাস্তুল চিকচিক করে ওঠে