Home আপনিও লিখুন

আপনিও লিখুন

T3 শেষের কবিতায় মানস চক্রবর্ত্তী

আমি কতদিন ঘুমোইনি আমি কতদিন হলো ঘুমোইনি এ কি শোকের আকুতি ? না অভিমানের বিহ্বলতা ? যাদের জন্য গরল সেচে মুক্তি আনি তাদের শীতল শীতের মতো শিরশিরানি | আমি এসব...

T3 শেষের কবিতায় যুথিকা সাহা

একলা থাকার মানচিত্র হেমন্তের শেষ বিকেলের সূর্যাস্তের আলো এসে পড়েছে দক্ষিণ বারান্দার ওই মাধবী গাছে ... উত্তরে হাওয়ার শিরশিরানি শরীরে ছোঁয়া দিয়ে যায় ---মন যেন ভাবনার...

T3 শেষের কবিতায় মাহফুজ আল-হোসেন

পৌষালি রাত্রিরাগ কমলাটে হলুদ রসালপত্রঝরা মৃদু শৈত্যকে মিছেমিছি মৃত্যুর প্রতিকল্প ভেবে মূলতঃ এসপ্রেসো জীবনকেই ডেকে আনি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়া তড়িঘড়ি ত্রস্ততায় ছেড়াকাঁথায় শুয়ে লাখ টাকার স্বপ্নটিকে ( এটা একবিংশের...

T3 শেষের কবিতায় সোমেন চ্যাটাজ্জী

পৌষ পার্বন এলো পৌষের খুশির জোয়ার সারাটি গ্ৰাম মাতিয়ে, উঠোনে উঠোনে গোবরের ন্যাতা আলপনা দেয় জাঁকিয়ে। দুদিন আগেই মা কাকিরা পাশের পাড়ার গিয়ে, ঢেঁকিতে চাল করেছে গুঁড়ো পৌষ পার্বণ বলে। মাটি দিয়ে গড়িয়ে...

T3 শেষের কবিতায় আবদুল বাতেন

জীবন যেমন পুলসিরাত পার হচ্ছি প্রতিমুহুর্তে যেন! দশদিকে উৎকন্ঠার অমরাবতী! গৃহস্থালি গোঙানির প্রাণে পাকাপোক্ত। জমাট বাঁধে রক্ত, শ্বাসকষ্ট মৃত্যুভয়ে মানুষের। কলিজায় ঠোকরায় অবিরত শকুন সংশয়! চরণ চল তবু উর্বষী উষা আলিঙ্গনে।

T3 শেষের কবিতায় কুমকুম বৈদ্য

সরীসৃপ একটা অকাল বসন্ত শীত কালে নেমে এল হঠাৎ , সাথে কোকিলের ডাক যে সব ট্রেনের কামরায় কম্বল গুছিয়ে রাখা ছিল ,প্রয়োজন ফুরিয়েছে আবহাওয়ার সাথে বদলায় আমাদের...

T3 শেষের কবিতায় শুভ্রব্রত রায়

সকল দেশের সেরা আমাদের ভারত প্রাচীনতম দেশ, সুনীল সাগর, সুউচ্চ পর্বত, বহতা নদী রূপের নাহিকো শেষ। রয়েছে মরুভূমির বালুকারাশি, আবার শস্যশ্যামল প্রান্তর এত বিচিত্র, তবু এক সুরে বাঁধা ভারতাত্মার অন্তর। ধনিক-বনিক, চাষী-জোলা...

T3 শেষের কবিতায় কল্যাণ গঙ্গোপাধ্যায়

হিম ভাবনা জীর্ণবস্ত্র কবে ফেলেছি, সেই স্মৃতি নদীটির তীরে ঝাপসা হয়ে ঢেকে গেল,’সুর জেগে ওঠা দিনগুলি পৌষের নীলঠোঁট নকশিকাঁথায় যে, খোঁজে আশ্রয় আমার শহরে ভোরে, আর কেন শিউলি...

T3 শেষের কবিতায় সরস্বতী বিশ্বাস

অর্ধনারীশ্বর শুনেছি তব হরগৌরীর কাহিনী-কথন, বাস্তবে আজ তাদের অল্প লিখন। হরগৌরী সেই দেবতাদের প্রতীক, অর্ধনারীশ্বর সন্ধি করলে ঈশ্বর অন্তিম দিক।। কেউ বা ডাক্তার, কেউ বা অধ্যাপিকা, কেউ বা লেখিকা, লিঙ্গ...

T3 শেষের কবিতায় শেষাদ্রি চট্টোপাধ্যায়

মুখোশ আমি খুব মাংসাশি লোক নিরুপায় তৃনেই থাকি চারদিকে চকচকে সব দেখে যাই রং চালাকি I একটু এদিক হলে বাবুদের রকম সকম তেলাকৈ পোস্ত পেঁয়াজ টিকটিকি টকম টকম I উঠে আয় সিংহশাবক তিনজনে বজ্র...

Popular articles

2,566FansLike
1,740SubscribersSubscribe
error: Security Alert: Copying Content is not allowed !!