কবি ও আমি 

ভর দুপুরে আমি গেছি
শক্তি বাবুর বাড়ি
দেখি তিনি আছেন শুয়ে
মেঝের উপর খালি গায়ে
জুঁইয়ের মতো শুভ্র খাতা
কিছুই তাতে হয়নি লেখা
কলম খানি গুমরে কাঁদে
কিসের লাগি কেবা জানে
বুঝলাম আমি,  ভীষণ খারাপ মন
প্রণাম সেরে বললাম আমি , আমায় কিছু কন |
” কি কইব ? কিসের লাগি ?
কেনই বা এলে তুমি ? ”
আমি এলাম শুনতে আনন্দ ভৈরবী |
” অবনী কেমন আছে বলতে পারো তুমি  ? ”
তিনি তো আছেন দুয়ার এঁটে
কড়া নাড়লেও দেন না সাড়া
চলুন তবে ঘুরে আসি ওদের ছোট্ট পাড়া |
হঠাও কী যে হলো কবির , বলল ,
” না থাক | তুমি শোন আনন্দ ভৈরবী |
‘ আজ সেই ঘরে এলায়ে পড়েছে ছবি
এমন ছিল না আষাঢ় শেষের বেলা
উদ্যানে ছিলো বরষা পীড়িত ফুল
আনন্দ ভৈরবী | ‘  “