কাল জয়

ভাবছি লিখব না কিছুদিন, যেমন লিখিনি মাঝে দু’কুড়ি বছর ;
শুধুই দেখেছি চেয়ে শব্দ নিয়ে অনর্থক লোফালুফি খেলা
উন্মুখ কুঁড়িগুলি সত্যিই কি ফুটেছে আজও ?
নাকি ঝরে গেল, অতিবর্ষা খরা বা ঝঞ্ঝায় !
মন চায় ডেকে বলি আস্ফালিত লেখনীগুলিকে,
‘দশটি বছর টিঁকো, পরে নয় ভাবা যাবে হাজার বছর’ !
কাল জয় ? কখনোই নয় সে সহজ কাজ,
ওসব হয়ে গেছে, চুকে গেছে কত বর্ষ আগে ;
পুরস্কার সম্বর্ধনা ইতিউতি সভা ও সমিতি,
লেখার নির্যাসটুকু কুরে খায় সাহিত্য-মাফিয়া ।
ভাবছি লিখব না কিছুদিন, যেমন লিখিনি মাঝে দু’কুড়ি বছর ;
তখনও চলেছে জোর শব্দ নিয়ে নিরন্তর লোফালুফি খেলা,
থোড়-বড়ি-খাড়া’-র সে নিরলস অপূর্ব ঘূর্ণন ।
নতুন কী-ই বা আছে পড়ে ভাবনার ভাঁড়ারে ?
যা দেখি চতুর্দিকে সব ফিকে পাংশু চেতনা,
ছায়ারা গিলে খায় কলমের শেষ কালিটুকু ।
অধুনা সাহিত্য মানে খুঁটে খাওয়া চর্বিত চর্বন,
গর্বিত কবিদের যত উলম্ফন সমাজ-মাধ্যমে ।