পুরুষ তুমি প্রেমিক হয়ো

এতো এতো ডেটা, স্ট্যাটিস্টক্স, সত্যি মামলা, মিথ্যে মামলা, পুরুষ কাঁদে না কাঁদে না… গত দুদিন ধরে ফেসবুক জুড়ে উত্তর, প্রত্যুত্তর… আমাকে আজকাল কোলাহল বড়ো ক্লান্ত করে!!!
“পুরুষ” এই একটা শব্দে আসলে মিশে আছে মনের ভিতর জমে থাকা বহু রাগ, অপমান, অবহেলা আর, আর তার চেয়েও বেশি অনেকটা অভিমান… এই অনুভূতিগুলো যেমন সূক্ষ্ম তীক্ষ্ণ,
আলো নিভিয়ে অপেক্ষায় প্রহর গোনাটাও ততটাই সত্যি!!!!
যেখানে একটা আশ্রয়ের কাছে মাথা নত করতে চায় এক উদ্ধত, অহংকারী নারী… যে নিজের ভিতরের বালিকাকে ঘুম পাড়িয়েছে বহুযুগ আগে!!!
আসলে জীবন দিয়ে উপলব্ধি করা বড়ো কঠিন ঠাঁই…
যে পুরুষ তার প্রেমিকাকে নিজের যৌন হেনস্তার কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলে, তার কান্না নিয়ে তর্ক করার ধৃষ্টতা আমার নেই!!!
আবার ফেসবুকে নারীর দুঃখে চোখের জল ফেলে ইনবক্সে কুপ্রস্তাব দিতে দুবার ভাবেন না… তার পুরুষ শব্দের ভারটুকু বওয়ার যোগ্যতাও নেই… এই দ্বিচারিতা আর দ্বৈতসত্ত্বায় ক্লান্ত না হওয়া পুরুষরা আর তাদের এই সমস্ত দ্বিচারিতায় যোগ্য সঙ্গত দেওয়া নারীবাদী নারীরা… এই দুই প্রজাতির থেকেই আমার শত যোজন দূরত্বই ভালো…!!!
সাথে একরাশ করুণাও ফ্রি…
পুরুষদিবসে সেই পুরুষদের সবটুকু শুভেচ্ছা যারা মুখে নয়, কাজে যোগ্যতা প্রমাণ করেন…
সমস্ত প্রতিকূলতার মুখোমুখি দাঁড়িয়েও দিনের শেষে হাত বাড়িয়ে বলতে পারেন… আছি আমি এখনো!!!
তাই সারাদিন পরিশ্রমের পর একসাথে ঘরে ফিরে প্রিয় নারীর হাতে এক গ্লাস জল কিংবা এক কাপ চা তুলে দেওয়া পুরুষকে স্ত্রৈণ না বলে শ্রদ্ধা করুন…
এতে আপনার পৌরুষের ধার বিশেষ কমবে না।