১| কাজে দেখাও

নতুন রবির আশার আলোয় নতুন বছর আসে
বুনছে আবার নতুন স্বপ্ন সেই খুশিতেই ভাসে।
পুরাণ বছর নিচ্ছে বিদায় বারোটা মাসের শেষে
নতুন বছর কাটুক সবার আনন্দ আর হেসে।
বিগত বছর কষ্টের ছিল জগৎ জুড়েই জানে
অনেক স্বজন হারিয়ে এখন বুঝেছি তারই মানে।
সুস্থ থাকতে এবার আমরা চলবো সবাই বুঝে
কিসের জন্য হচ্ছে এসব দেখবো কারণ খুঁজে।
সরকারি সব নিয়ম নীতির নির্দেশ মেনে যাবো
বাইরে গেলেই মাস্ক পড়বো হাতটা ধুয়েই খাবো।
সুস্থ শরীরে বাঁচতে পারলে উন্নতি সব হবে
সবাই খুশিতে থাকলে পরেই শপথ সফল তবে।
দুর্নীতি সব বন্ধ করতে এক সুরে সব বলো
গরিব দুখীর অধিকার দিতে সত্যের পথে চলো।
সবাই সমান জগতের বুকে ছোট বড় নহে কেউ
বিদ্বেষ ছেড়ে সবার হৃদয়ে বাড়ুক প্রেমের ঢেউ।
কাজটা করেই দেখাবো আমরা এমন শপথ নাও
দেশের জন্য সবার স্বার্থে নিজের পুরোটা দাও।
পাপের পথটা ছাড়তে হবেই তবেই সবার ভালো
নতুন বছর নতুন করেই জ্বলুক খুশির আলো।

২| বিভেদ ভুলে

নতুন করে আশায় ভরে
চলবো স্বপ্ন নিয়ে,
বাস্তব করতে কর্মগুলো
করব আগে গিয়ে।
পুরাণো সব কষ্টের কথা
যাবো আগে ভুলে,
বাঁচবো এখন সবার সাথে
মনটা পুরো খুলে।
ধনী গরিব হিংসা বিদ্বেষ
মনের থেকে ফেলে,
আরো ভাল থাকার জন্য
দু’হাত দেবো মেলে।
স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে
থাকবো একটু দূরে,
জীবন আবার বিশ্ব মাঝে
চলুক খুশির সুরে।
নতুন বছর চলো সবাই
মনে শপথ করি,
বিভেদ ভুলে মিলেমিশে
সুন্দর বিশ্ব গড়ি।

৩| সবার মত চাই

একলা যখন একটা মেয়ে কাজে বাইরে যায়
মাতা পিতা ভালো ভাবে ফিরে আসুক চায়।
যতো সময় ফিরছে নাতো মেয়ে নিজের ঘর
নানান চিন্তা করতে থেকে পেতে থাকে ডর।
কাজের শেষে বাড়ি ফেরে হলে অনেক রাত
হঠাৎ করেই একটা ছেলে টেনে ধরে হাত।
চারজন মিলে মুখটা চেপে নিয়ে চলে দূর
পশুগুলো ছাড়ে নাতো শুনে কান্নার সুর।
ওদের কারো মনের মধ্যে দয়া মায়া নাই
সবাই মিলে একলা পেয়ে ধর্ষণ করে তাই।
গায়ের জোরে যৌন সুখের আশ মিটিয়ে নেয়
আইন থেকে বাঁচার জন্য শেষে মেরে দেয়।
এমন করে কতো মেয়ে দেশের হচ্ছে ক্ষয়
কি যে হবে এই সমাজে তাইতো লাগে ভয়!
নারী পুরুষ অনুপাতটা কমতে থাকলে রোজ
জীবন যাত্রা সচল রাখতে বেড়ে যাবে বোঝ।
সেই কারণে চলো সবাই ওদের বাধা দিই
এমন কাজে লিপ্ত যারা তাদের হিসাব নিই।
নারী চলুক দিনে রাতে নির্ভয়েতে পথ
ফাঁসি দিয়ে ধর্ষক মারতে সবাই দিও মত।

৪| সত্য তুলে ধরা

মিথ্যা লিখে কিংবা বলে হয় না কারো ভালো
অসৎ পথে সবার শেষে থাকে জেনো কালো।
ভয়ে-ভয়ে বেঁচে থাকার চেয়ে মরণ সুখের
এমন করে থাকলে পরে জীবন হবে দুখের।
কবি তুমি মনের কথা লেখো মনটা খুলে
লেখার সময় অন্য কারো ভয়গুলো যাও ভুলে।
মসির জোরে খাতার পাতায় সত্য তুলে ধরো
এই সমাজে সবার জন্যই নতুন কিছু গড়ো।
সত্যি কথা লেখার পরে আসতে পারে বাধা
তবু তুমি লিখে যাবে ছাড়বে নাতো আধা।
জন্ম হলে মৃত্যু হবে আমরা সবাই জানি
সত্যের জন্য মৃত্যু হলে মহান সে জন মানি।
নিজে যেটা সঠিক মনে করো সেটাই লেখো
পরিবর্তন কেমন হচ্ছে আগে গিয়ে দেখো।
চাপে কিংবা অর্থ নিয়ে লিখো নাতো কভু
মনে রাখবে উপর থেকে সবই দেখেন প্রভু।
ইতিহাসে লেখা আছে সত্য চাপা দেবে
গায়ের জোরে মিথ্যা কথা লিখিয়ে সব নেবে।
অসির চেয়ে মসির শক্তি বেশি প্রমাণিত
সত্য কথা লিখতে গিয়ে তবু কেনো ভীত?

৫| অল্পে সুখ

তাঁর দয়াতে ধরায় আসি
যাবো তারই ডাকে,
আমার করা কর্মগুলো
বলবো গিয়ে তাকে ।
কিছুই সাথে নিয়ে আসিনি
যাবোও খালি হাতে,
জীবন পথে যেটুকু পাই
মনটা ভরি তাতে ।
ক’দিনইবা থাকবো হেথা
তার ঠিকানা নাই,
জীবন ভর করবো কেন
চাই শুধুই চাই ?
ভাগ্যে আছে যত আমার
ততটা পেলে হলো,
অধিক নিয়ে করবোটা কি
তোমরা কেউ বলো ?
অল্প নিয়ে থাকলে খুশি
সেটাই বড় সুখ,
অনেক বেশি করে চাইলে
বাড়তে থাকে দুখ ।
সরল পথে পারলে যেতে
চাই না কিছু আর
মনটা তাই শুদ্ধ করে
নামটা নিই তাঁর ।