১| মনুষত্ব

আমি এসেছি এক মানুষ হয়ে এই জগৎ পানে
সত্যিকারের মানুষ হতে এসেছি আমি,
আজ হারিয়ে ফেলেছি তার মনুষত্ব ও বিবেক
তাকেই ভুলে আজ আমাদের চলার পথ।
হে মানব দেহ তোমাকেই বলছি
জেগে ওঠ আমার বিবেকের দ্বার প্রান্তে,
তুমি একজন মহা-মানব তোমাকে
জাগতেই হবে আবার আমার বিবেক মাঝারে।
আমি ভবের পুজারী নই সৃষ্টির পুজারী,
তবে পাগল নেশায় ব্যস্ত এই ভবের সুখে
জাগ্রত হও হে মানব সমাজ এই ভবে।

২। হরিয়ে যাওয়া দিন

আমি ক্ষয়ে যাওয়া এক নাবিক মাত্র!
বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছি রোগে আর শোকে,
সাধ জেগেছে নতুন করে বাচার স্বপ্ন দেখছি
আবার যদি ফিরে পাই হারিয়ে যাওয়া শৈশব।
এইতো সেদিনের পথ চলা আমার
পাঠশালার দিন কত মাঠে প্রান্তে ছুটে বেড়িয়েছি,
পুকুড়ে আর জলাসয়ে অনেক সাতঁরিয়েছি
জীবন যুদ্ধে হেরে যাওয়া আমি এক সৈনিক।
ছিলাম শিশু হলাম বালক তারপর বাবা
দাদু হয়ে এখন আমি আবার শিশুর ন্যায়,
সময় কাটেনা কারও উপরে ভর দিয়ে চলছি
অথচ এই সময় আমার ছিলোনা একসময়।
হে যুবক শুনে রেখ আসছে সময়
হারিয়ে যাবে দিন ফুরিয়ে যাবে কথা,
চলার পথ চিরোতরে হারিয়ে যাবে
ফিরে আসবে না সুদিন।
ক্ল্যান্ত আমি রক্তে মাংসে এখন শক্তি নাই
আগামির জন্য আমি রেখে যেতে চাই,
সুদিনের পথ চলার সঙ্গি হয়ে থাক
আমার আগামির প্রজম্ম থেকে প্রজ্ম্ম।