বেলাশেষের নির্বাসন

বেলাশেষে! তুমি ওপারের প্রান্তে;
আমি দাঁড়িয়ে ধূ-ধূ মরীচিকা মাঝে।
সময়ের আবডালে, স্মৃতির আলিঙ্গন;
মায়াজালের মুমূর্ষ হাতছানি!
অন্তহীন বেদনার সাগর পাড়ে;
একফালি ডুবন্ত সূর্য,
আর শিখা হীন মোমবাতি;
জানালার কোটরে চাঁদ,
অলিন্দে দেয় উঁকি।
মূর্ছিত গোলাপ পাপড়ি,
ঝরে যাওয়া সবুজ পাতার খামে,
চিঠি ছিল অন্তরের, একান্তই নির্জন।
গোপন কুঠুরির বন্ধ দুয়ারে,
নির্লজ্জ মনের নির্বাসন।
জল-বিন্দুর মতো নীলাভ আভা,
জ্যোৎস্নায় স্নিগ্ধ তারারা,
গহীন রাতের সাথী,
একাকী পথ চলার, একান্তই গোপন;
লোক নিন্দার ভয়ে।।