না মানুষের সংসদ

এক বালতি জোৎস্না লাগবে আর সাদা তুলি ।
মন বলল –
জোৎস্না বুঝি দোকানে কিনতে পাওয়া যায় !
কোলকাতা শহরে পাওয়া যায় না কিন্তু তোমাদের পলাশিপাড়ায় পাওয়া যেতেও পারে ।
মন চুপ করে রইল । তারপর বলল –
কেন মহাত্মা শিশিরের দোকানে !
মন মুচকি হেসে বলল –
আমি একটা চালাকি জানি ।
দাদু বলল,
কী ?
আমাদের বাড়িতে জাল আছে । নাইলনের দড়ি দিয়ে তৈরি । ওতে কঞ্চি বেঁধে সব্বাই যখন ঘুমিয়ে পড়বে অনেক রাতে আমি আর তুমি জোৎস্না ধরব ।
বাঃ চমৎকার । ঠিক আছে পলাশিপাড়ায় তো প্রচুর জোৎস্না – ওখানে থেকে এক বালতি শিকার করলে কম পড়বে না ।
মন তখন বলল,
সাদা তুলি সেই জোৎস্নার রঙে চুবিয়ে আকাশের গায়ে ছিটিয়ে দেবো – তখনই টগবগ টগবগ সাদা ঘোড়া আসবে ।
সে এলে কি উপহার দেবে তাকে !
মন কিছুক্ষণ চুপ করে থেকে বলল –
সাদা ফুল । বকুল, জুঁই আর টগর ।
দারুণ, দারুণ ।
হাততালি দিয়ে উঠল দাদু ।
মন বলল –
আরো একটা জিনিস দেবো ।